Home / বিশ্ব / পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূলেরই,কেরালায় বাম, আসামে এলডিএফ, তামিল নাড়ুতে ডিএমকে

পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূলেরই,কেরালায় বাম, আসামে এলডিএফ, তামিল নাড়ুতে ডিএমকে

ভারতে বিধানসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে তৃতীয়বার সরকার গঠন করবে তৃণমূল। নন্দীগ্রামে এগিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।কেরলে এগিয়ে বামেরা, আসামে এলডিএফ এবং তামিলনাড়ুতে ডিএমকে জোট। পুদুচেরিতে এগিয়ে বিজেপি জোট।

ঢাকাঃ পশ্চিমবঙ্গ আবার তৃণমূলের হাতেই যাচ্ছে। পশ্চিমবঙ্গে পরপর ৩য় বার সরকার গড়ার পথে তৃণমূল কংগ্রেস। এই নিয়ে পরপর তৃতীয়বারের জন্য  সরকার গড়তে চলেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের তৃণমূল কংগ্রেস। মোদী-শাহের যাবতীয় প্রয়াস, কৌশল ব্যর্থ। পঞ্চাশ শতাংশের মতো ভোট পেয়েছে তৃণমূল। গত লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি রাজ্যে যা ভোট পেয়েছিল, এ বার তা চার শতাংশ কমে হয়েছে ৩৬ শতাংশের মতো।  ফলে মেরুকরণের চেষ্টা, প্রায় সব রাজ্য থেকে নেতাদের উড়িয়ে এনে ভোটের দায়িত্ব দেয়া, প্রধানমন্ত্রীকে দিয়ে ৩০টি জনসভা করানো কোনো কিছুই কাজে আসেনি। বাংলার মেয়ের উপরেই ভরসা রেখেছে পশ্চিমবঙ্গ।

পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেস ২০৭টি কেন্দ্রে এগিয়ে, বিজেপি ৮১টি কেন্দ্রে এবং বাম জোট মাত্র দুইটি কেন্দ্রে এগিয়ে।এখনো কয়েকটি রাউন্ডের গণনা বাকি। তবে প্রায় অর্ধেকের বেশি রাউন্ডের গণনা হয়ে গেছে।নাটকীয় কোনো বদল না হলে তৃণমূল কংগ্রেস আবার সরকার গঠন করতে চলেছে। ১২ রাউন্ডের গণনার পর  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চার হাজারের বেশি ভোটে এগিয়ে।

নরেন্দ্র মোদী ও অমিত শাহের কাছে বড় ধাক্কার কারণ, বিজেপি পশ্চিমবঙ্গে একশ আসনও ছুঁতে পারছে না। ফলে প্রশান্ত কিশোর বা পিকে যে দাবি করেছিলেন, তা মিলে যাওয়ার মুখে। দক্ষিণবঙ্গে প্রায় একচেটিয়াভাবে জিতছে তৃণমূল। উত্তরবঙ্গও তাদের হতাশ করেছে।  যে সব আসন তারা জিতবে ভেবেছিল, তা তারা পায়নি।

তৃণমূল প্রায় পঞ্চাশ শতাংশ ভোট পেয়েছে। বিজেপি পেয়েছে ৩৬ শতাংশ। কংগ্রেস আড়াই ও সিপিএম সাড়ে চার শতাংশ ভোট পেয়েছে।

তৃমমূল কংগ্রেস নেতাকর্মীরা এখন থেকেই জয় পালন করতে রাস্তায় নেমে পড়েছেন। কলকাতার বিভিন্ন রাস্তায় শুরু হয়েছে সবুজ আবির খেলা। করোনার কড়াকড়ি না মেনে তারা দলের এই অসাধারণ জয় পালন করতে শুরু করেছেন। প্রতীকী ছবি

ভারতে বিধানসভা নির্বাচনে কেরালায় বাম, আসামে এলডিএফ, তামিলনাড়ুতে ডিএমকে

কেরালায় এতদিনের ঐতিহ্য় ছিল, একবার বাম এবং  অন্যবার কংগ্রেসের নেতৃত্বাধীন জোট ক্ষমতায় আসে। এ বার সেই রীতির বদল হচ্ছে। কারণ, বাম জোট এলডিএফ এগিয়ে ৯৬টি আসনে। কংগ্রেসের জোট ইউডিএফ ৪৪ আসনে এবং বিজেপি কোনো আসনে এগিয়ে নেই। কেরালায় পরপর দ্বিতীয়বার সরকার গঠন করতে চলেছেন পিনারাই বিজয়ন।

আসামে কংগ্রেস জোটের থেকে এগিয়ে গেছে বিজেপি। তারা এগিয়ে ৭৫ আসনে, কংগ্রেস জোট ৪৮ আসনে এগিয়ে।

তামিলনাড়ুতে আবার ক্ষমতায় আসতে চলেছে ডিএমকে। ডিএমকে জোট ১৪৭ আসনে এবং এআইএডিএমকে জোট ৮৬ আসনে এগিয়ে। পুদুচেরিতে বিজেপি জোট ৮টি ও কংগ্রেস জোট চারটি আসনে এগিয়ে। পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল তৃতীয়বারের জন্য সরকার গঠন করতে চলেছে।

জিএইচ/এসজি(পিটিআই, এবিপি আনন্দ)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*