Home / সর্বশেষ খবর / শুভ জন্মদিন সম্পাদক নাসিমা খান মন্টি

শুভ জন্মদিন সম্পাদক নাসিমা খান মন্টি

নাসিমা খান মন্টিকে দেখে আমি বারবার অবাক হই। প্রথম দেখায় যে কেউ ভাববেন তিনি বাংলাদেশের আর দশজন নারীর মতই সাধারণ একজন সংসারী নারী। তিন কন্যার গর্বিত মা। ঢাকায় তিন কন্যার তদারকি করা যে কি ঝক্কির কাজ; সেটা যারা করেন, তারা বুঝবেন ভালো। নিছক তিন কন্যার পড়াশোনা করানোতেই দায়িত্ব শেষ নয়। মন্টির তিন কন্যাই নিজ গুণে গুনান্বিতা। কেউ ছবি আঁকছে, কেউ গাইছে, কেউ গিটার বাজাচ্ছে। এইটুকু শুনে কেউ ভাবতে পারেন, মন্টি একজন দায়িত্বশীল মা। কিন্তু যখন শুনবেন নাসিমা খান মন্টি চারটি জাতীয় গণমাধ্যমের পূর্ণকালীন সম্পাদক, তখন আমার মত আপনারাও অবাক হবেন। আমার বিস্ময়ের কারণ হলো, তিন কন্যা এবং সংসার সামলানোর পর কীভাবে তিনি চারটি জাতীয় গণমাধ্যমের সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করতে পারেন। যখন জানবেন, মন্টির স্বামীর নাম নাঈমুল ইসলাম খান, তখন নিশ্চয়ই আপনারা ভাববেন, ও বুঝছি, নামকাওয়াস্তে সম্পাদক, স্বামীর পত্রিকায় স্ত্রীর নাম সম্পাদক হিসেবে ছাপা হতেই পারে। এখানেই আমার বিস্ময় আকাশ ছোঁয়। ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে আমি জানি, মন্টি একজন পূর্ণকালীন সম্পাদক। দৈনিক আমাদের নতুন সময়, দৈনিক আমাদের অর্থনীতি, ডেইলি আওয়ার টাইম, আমাদের সময়ডটকম- এর নিউজ তো বটেই, সামলান অর্থ-বাণিজ্য পুরোটাই।

নাসিমা খান মন্টি আসলে যেকটি পত্রিকার সম্পাদক হয়েছেন, ব্যাপারটি খুব সহজও ছিলনা। সম্পাদক হওয়ার জন্য তিনি নিজেকে প্রস্তুত করেছেন ধাপে ধাপে। আজ তিনি যে পত্রিকাগুলোর সম্পাদক ২০০৪ সাল থেকে এই পত্রিকায় তিনি সহ-সম্পাদক হিসেবে কাজ শুরু করেন। ধাপে ধাপে পালন করেছেন বিভিন্ন দায়িত্ব। ২০১০ সাল থেকে তিনি ২৪ ঘণ্টার নিউজ চ্যানেল এটিএন নিউজে সহ-সম্পাদক হিসেবে পুর্ণকালীন হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। সাধারণ রোটায় দিনের বিভিন্ন সময়ে তো বটেই এমনকি রাতেও কাজ করেছেন। এটিএন নিউজে আমরা কেউ তাকে ভাবি ডাকতে পারিনি। তিনি নাঈমুল ইসলাম খানের স্ত্রী হিসেবে নয়, কাজ করেছেন নাসিমা খান মন্টি হিসেবেই। এটা মানতেই হবে নাঈমুল ইসলাম খানের স্ত্রী হিসেবেই তিনি চারটি জাতীয় গণমাধ্যমের সম্পাদকের দায়িত্ব পেয়েছেন। তবে দায়িত্ব যাতে নামকাওয়াস্তে না হয়, সে জন্য তিনি নিজেকে প্রস্তুত করেছেন। এখানেই নাসিমা খান মন্টি আর সবার চেয়ে আলাদা।
শুভ জন্মদিন সম্পাদক নাসিমা খান মন্টি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*